বর্ণালী

লেখক : অপূর্ব মহাপাত্র

তুমি আমাকে শিখিয়েছিলে সভ্যতা,
চিনিয়েছিলে বর্ণমালা র প্রথম ভাগ।
তোমার যুক্তাক্ষরে জিভ হয়েছিল অভ্যস্ত,
আজ ইতস্তত হয়ে স্পর্শ করি তোমায়।

সেদিন ও কী এসেছিল মারণ সংক্রমণ?
আলো থেকে তুমি সরেছিলে আঁধারে।
বহু কৃচ্ছ্রসাধন করে জ্বালিয়েছিলে যে মোমবাতি-
কেন সরে গেলে তার শিখা থেকে?

যাদের কে হাত ধরে তুলেছিলে নরক থেকে
তারাই কী তোমায় বলেছিল – চরিত্রহীন?
সেদিন ও কী তুমি খুঁজে পাওনি কোনো ঔষধ?
তাই বিচ্ছিন্ন হয়ে থেকেছিলে সাঁওতালদের মাঝে।

সাগরের মতো বিদ্যার সামনে আজ নত হয়ে থাকি
রহস্যে মোড়া বর্ণগুলো – দ্বিতীয় ভাগে ছুঁয়ে দেখি।

error: Content is protected !!