সন্তানহারা হলেন অনুরাধা পড়োয়াল

একতারা বাংলা, নিউজ ডেস্ক: সন্তানহারা হলেন জনপ্রিয় গায়িকা অনুরাধা পড়োয়াল। চলে গেলেন অনুরাধার ছেলে আদিত্য। বয়স হয়েছিল মাত্র ৩৫। চিকিত্স কেরা জানিয়েছেন, আদিত্যের কিডনি কার্যক্ষমতা পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় ওনার জীবনাবসান হয়েছে।

মায়ের মতো আদিত্যর জীবনও ছিল সঙ্গীতময়। মিউজিক কম্পোজার ছিলেন তিনি। শুরু করেছিলেন বলিউড যাত্রাও। কিন্তু ৩৫ বছর বয়সেই থমকে গেল জীবন।

বিশিষ্ট গায়ক শঙ্কর মহাদেবন শোক প্রকাশ করে লিখেছেন, আমাদের প্রিয় আদিত্য আর নেই। এই খবরটা শুনে ভেঙে পড়েছি। বিশ্বাসই হচ্ছে না।
নব্বইয়ের দশকের অন্যতম বিখ্যাত গায়িকা অনুরাধা পড়োওয়াল। কুমার শানুর সঙ্গে অনুরাধার জুটি ছিল দর্শদের অন্যতম পছন্দের।

পরবর্তী কালে প্লেব্যাকের জগত থেকে নিজেকে একেবারেই সরিয়ে নেন অনুরাধা। মন দেন ভক্তিগীতিতে। এই বছরের শুরুর দিকে একটি সাক্ষাৎকারে আদিত্য বলেছিলেন, মায়ের গাওয়া ভজন, আরতি, প্রার্থনা সঙ্গীত শুনে অনেকের জীবন বদলে গিয়েছে। আমি চাই মায়ের জন্য একটা কম্পোজিশন তৈরি করতে।

‘সাহেব তু’ গানটি সম্পর্কে আদিত্য বলেছিলেন, এই প্রথম কোনও ছবির গানে ৭২ জন যন্ত্রশিল্পীকে নিয়ে তৈরি অর্কেস্ট্রা ব্যবহার করা হয়েছে। গানটি বালাসাহেব ঠাকরের জীবন আলেখ্যর পটভূমিকা হিসেবে ছবিতে ব্যবহার করা হবে বলেও জানিয়েছিলেন আদিত্য।

error: Content is protected !!