মাসে হাজার টাকা ভাতা পুরোহিতদের ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

একতারা বাংলা, নিউজ ডেস্ক:

যাঁরা গরিব পুরোহিত, সনাতনী ব্রাহ্মণ, হয়তো সারা বছর খুব বেশি পুজো পান না, আর্থিক সমস্যায় রয়েছেন, তাঁদের কথা মাথায় রেখে পুরোহিত ভাতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। পুরোহিতদের জন্য মাসিক এক হাজার টাকা ভাতা, দলিত সাহিত্য অ্যাকাডেমির গঠন এবং মতুয়া উন্নয়ন পর্ষদের পুনর্গঠনের সিদ্ধান্ত সোমবার ঘোষণা করেছেন তিনি।

দলিত সাহিত্য অ্যাকাডেমিতে মতুয়া-প্রতিনিধিরও সদস্যপদ দেওয়া হয়েছে। পুজোর মাস থেকেই পুরোহিতদের ভাতা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এরকম ৮ হাজার পুরোহিতের তালিকা আমরা পেয়েছি। তাঁদের মাসে হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।” যাঁদের বাড়ি নেই তাঁদের বাংলার আবাস যোজনার বাড়িও দেওয়া হবে।

ইমাম-মোয়াজ্জমদের ভাতা দেওয়া নিয়ে বিরোধীদের আক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছে রাজ্য সরকারকে। এক্ষেত্রে পুরোহিতদের কেন ভাতা দেওয়া হবে না, সেই প্রশ্ন তুলে সরব হয়েছিল অনেকেই। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “ইমাম-মোয়াজ্জেমরা সামাজিক কাজ করেন। তাঁরা ভাতা পান। হিন্দুদের মধ্যে এমন কিছু নেই। সনাতন ধর্মে ব্রাহ্মণরা পুজো করেন, তাঁদের অনেকের আর্থিক অবস্থাও খুব খারাপ। কোনও সুযোগ-সুবিধা পান না। তাঁরা আমার কাছে আবেদন করেছিলেন।”

লকডাউনের আগে কলকাতার রাণী রাসমণি এভিনিউতে পুরোহিত সম্মেলনের আয়োজন করেছিল তৃণমূল। সেখানেই পুরোহিতদের জন্য ভাতা চালুর দাবিকে সমর্থন করেছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।
বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিংহ অবশ্য বলছেন, দশ বছর উনি আল্লা নাম করেছেন, ইমাম ভাতা দিয়েছেন, তখন অন্যদের কথা মনে পড়েনি। এখন মরণকালে হরি নামের মতো করে পুরোহিতদের ঘুষ দেওয়ার কথা মনে পড়েছে।

error: Content is protected !!