রেলে চাকরির ভুয়ো নিয়োগপত্র

একতারা বাংলা, নিউজ ডেস্ক:

রেলে চাকরির ভুয়ো নিয়োগপত্র দিয়ে এক যুবতীর কাছ থেকে ১৩ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠল। পূর্ব রেলের একটি নিয়োগপত্রও দেওয়া হয় তাঁকে। তা নিয়ে তিনি বর্ধমান স্টেশনে কাজে যোগ দিতে আসেন।

পরে বুঝতে পারেন সম্পূর্ণটাই ভুয়ো। ওই যুবতীর এক পরিচিত, যাঁর মাধ্যমে চাকরির যোগাযোগ হয় তিনি বর্ধমান থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তার ভিত্তিতে কেস রুজু করে তদন্তে নেমেছে বর্ধমান থানা।

হুগলির চুঁচুড়া থানার ফার্ম সাইড রোডের বাসিন্দা পেশায় চিকিৎসক পুলক মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, গতবছর তাঁর সঙ্গে ফেসবুকে হুগলির চন্দননগরের দুই বাসিন্দার পরিচয় হয়। কথা প্রসঙ্গে তাঁরা বলেন, রেলে চাকরি করে দেওয়ার ক্ষমতা তাঁদের রয়েছে তবে কিছু টাকা নেবেন। পরিচিত ওই যুবতীর চাকরির জন্য তিনি তাঁদের বলেন।

কিছুদিন পর তিনি চাকরি প্রার্থীকে নিয়ে বর্ধমানে এসে ১৩ লক্ষ টাকা দেন। তার কিছুদিন পর যুবতীকে পূর্ব রেলের একটি নিয়োগপত্র দেওয়া হয়। সেটি নিয়ে যুবতী বর্ধমান স্টেশনে আসেন।

রেলের কর্মী পরিচয় দিয়ে যুবতীকে প্রশিক্ষণ দেয় দু’জন। কয়েকদিন প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর পুরো বিষয়টি ধোঁকা বলে বুঝতে পারেন যুবতী। এরপর তিনি টাকা ফেরত চান। কিন্তু টাকা ফেরত দেওয়া হয়নি তাঁকে। পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন যুবতী।

error: Content is protected !!