গ্রিন ট্রাইবুনালের রায় বহাল রাখল সুপ্রিম কোর্ট

একতারা বাংলা, নিউজ ডেস্কঃ

রবীন্দ্র সরোবরে ছটপুজো করা নিয়ে মামলা রুজু হয়েছিল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল বা পরিবেশ আদালতে। অনুমতি না মেলায় কেএমডিএ আবেদন করেছিল সুপ্রিম কোর্টে। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টে গিয়েও সুরাহা হল না। গ্রিন ট্রাইবুনালের রায়কেই বহাল রাখল সুপ্রিম কোর্ট।
এই বছর সেপ্টেম্বর মাসে পরিবেশ আদালতের কাছে কলকাতা মেট্রোপলিটন ডেভলপমেন্ট অথরিটি তথা কেএমডিএ আবেদন করেছিল, ছটপুজো করতে দেওয়া হোক রবীন্দ্র সরোবরে। সেই আর্জি খারিজ করে দেয় গ্রিন ট্রাইবুনাল।

জানিয়ে দেয়, কোনও শর্তেই রবীন্দ্র সরোবরে ছটপুজোয় অনুমতি দেওয়া যাবে না। এর পরেই সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার কথা জানিয়েছিলেন কলকাতা পুরসভার প্রশাসনিক বোর্ডের প্রধান তথা পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

প্রসঙ্গত, দিন দশেক আগে কলকাতা হাইকোর্টেও ছটপুজো নিয়ে তুলোধনা করা হয় রাজ্যকে। এক জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে রাজ্যকে প্রশ্ন করেন বিচারপতি, কলকাতায় ৩৮০টি ঘাট আছে সেখানেই ছট পুজোয় মানুষ আসেন, এ ছাড়া শিলিগুড়ি, দুর্গাপুরেও ছটপুজো হয়। কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে? প্রসেশন বের হয়, ভয়ংকর ডিজে বাজে, বাজি ফাটে।এগুলোর ক্ষেত্রে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে রাজ্যের পক্ষ থেকে?

রাজ্য সরকারের আইনজীবী জবাবে জানান, সকলে যাতে মাস্ক পরেন নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাল্টা প্রশ্ন করেন বিচারপতি, এতে কি হবে? কী ধরনের প্রচার চালিয়েছে রাজ্য? রাজ্যের তরফে জবাব আসে, কেউ যদি বেরিয়ে যায়, কীভাবে আমরা সামলাব? উত্তর শুনে রীতিমতো ক্ষুব্ধ হন বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যকে কড়া ভাষায় তিনি বলেন, তার মানে আপনাদের কোনও পরিকল্পনা নেই? জীবন যেখানে স্বাভাবিক নয়, সেখানে রাজ্য কী প্ল্যান করছে? এরপরেই যাওয়া হয় সুপ্রিম কোর্টে। কিন্তু সেখানেও শেষ রক্ষা হল না।

error: Content is protected !!