কর্তব্যে অবিচল পিতৃহারা সিরাজ

একতারা বাংলা, নিউজ ডেস্কঃ

অস্ট্রেলিয়া সফরের মতো হাইপ্রোফাইল টুর্নামেন্টে ডাক পেয়েছেন মেন-ইন-ব্লুর হয়ে খেলার জন্য। কিন্তু ছেলের এহেন সাফল্য বেশিদিন দেখে যেতে পারলেন না মহম্মদ সিরাজের বাবা মহম্মদ ঘাউস। মাত্র ৫৩ বছর বয়সে প্রয়াত হলেন তিনি। বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। ফুসফুসে সংক্রমণ ছিল তাঁর।

তাঁর প্রয়াত হওয়ার খবর যায় অস্ট্রেলিয়ায়। সেসময় ভারতীয় দলের অনুশীলন চলছিল। অনুশীলন করছিলেন সিরাজ নিজেও। বোর্ডের তরফে মহম্মদ সিরাজকে জানানো হয়, চাইলে তিনি দেশে ফিরে যেতে পারেন বাবার শেষকৃত্যে অংশ নিতে। তবে সিরাজ জাতীয় দলের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়াতে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

বোর্ডের পক্ষে সাধারণ বিবৃতি দিয়ে সকলকে জানানো হয়, সিরাজের সঙ্গে বোর্ডের আলোচনা হয়েছে। চাইলে দেশে ফিরে এই কঠিন সময়ে পরিবারের সামনে দাঁড়ানোর অপশন দেওয়া হয় ওঁকে। তবে ফাস্ট বোলার জাতীয় দলের সঙ্গে থেকে দেশের কর্তব্য পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এই দুঃখের মুহূর্তে সিরাজের পাশে সর্বোতভাবে দাঁড়াবে বোর্ড।

ক্রিকেটার হিসেবে পরিচিতি পাওয়ার জন্য সিরাজের বাবার ভূমিকা অসামান্য। হায়দরাবাদে সামান্য অটো রিকশা চালিয়ে সেই সামান্য উপার্জনে তিনি ছেলে সিরাজকে ক্রিকেটার হওয়ার স্বপ্নপূরণে যথাযথভাবে সাহায্য করেছেন। এর আগে আইপিএলে সুযোগ পাওয়ার পরই সিরাজের বাবার এই আত্মত্যাগের কথা প্রচারমাধ্যমে জানিয়ে ছিলেন তিনি।
সিরাজের প্রশংসায় পঞ্চমুখ বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি টুইট করে সিরাজের সিদ্ধান্তকে কুর্নিশ জানান। টুইটে লেখেন, এই দুঃখ থেকে সেরে ওঠার জন্য সিরাজ যেন পর্যাপ্ত শক্তি পান। অজি সফরে ওঁর জন্য অনেক শুভকামনা রইল।

error: Content is protected !!