চার জায়গায় রাজধানীর দাবি মমতার

একতারা বাংলা, নিউজ ডেস্ক:

কেন্দ্রের কাছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি, একটা রাজধানী কেন থাকবে! ভারতের রাজনীতি দেশের চার প্রান্তে হওয়া উচিত বলে মনে করি। উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব ও উত্তর-পূর্বে।

মমতা এও মনে করে সংসদের অধিবেশনও দেশের চার কেন্দ্রে হওয়া উচিত। তিনি বলেছেন, সংসদের অধিবেশন ভারতের চার জায়গায় ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে করা উচিত। কখনও অন্ধপ্রদেশ, কর্নাটক, তামিলনাড়ু বা কেরলে। আবার উত্তরপ্রদেশ, পাঞ্জাব, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশে। একটা অধিবেশন বিহার, বাংলা, ওড়িশায় আর একটা উত্তর-পূর্বাঞ্চলে কেন হবে না। এই বিষয়টি আসন্ন সংসদের অধিবেশনে তুলে ধরার কথা দলীয় সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে নির্দেশ দেন মমতা।

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মজয়ন্তীকে ‘দেশনায়ক দিবস’ অ্যাখ্যা দেন মমতা। কেন্দ্র ‘পরাক্রম দিবস’ বলেছে। কিন্তু রাজ্য কেন ‘দেশনায়ক দিবস’ করছে তার ব্যাখায় মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নেতাজিকে দেশনায়ক আখ্যা দেন। তাই রবীন্দ্রনাথ-নেতাজিকে মিলিয়ে দেশনায়ক দিবস।

মমতা বলেছেন, কলকাতা একদিন ভারতের রাজধানী ছিল। তাহলে ভারতের একটা রাজধানী কলকাতায় কেন হবে না? আমি মনে করি, দেশের একটা রাজধানী কলকাতায় হতে হবে। কেন এমন দাবি, তার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেছেন, স্বাধীনতা সংগ্রাম, নবজাগরণ, সমাজিক সংস্কার, রেনেসাঁ-সব জন্ম দিয়েছে বাংলা। স্বাধীনতা সংগ্রামের জন্মদাতা ছিল বাংলা-বিহার। সেই বাংলাকে অবহেলা নয়।