করোনার উৎপত্তি কি চীনের ল্যাবেই, বিতর্ক চলছেই

মনোরঞ্জন যশ, দুর্গাপুর :

মারণ করোনা ভাইরাস পৃথিবীতে ছড়িয়ে দেবার জন্য ইউরোপের একাধিক দেশ ও আমেরিকা দায়ী করে থাকে চীনকে। একাধিক বিজ্ঞানী অভিযোগ করেছেন, চীনের উহান ল্যাব থেকেই তৈরি হয়েছে মারণ ভাইরাস করোনা। তবে, চীনের পক্ষ থেকে বারবার এই দাবি অস্বীকার করা হয়েছে। তবে, গতবছর ফ্রন্টিয়ার ইন পাবলিক হেলথ সায়েন্স জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছিল যে, উহানের বায়োসেফটি ল্যাবরেটরীতে কয়েকবছর ধরেই করোনাভাইরাসের মতো

একাধিক সংক্রামক ভাইরাস নিয়ে গবেষণার কাজ চলছিল। পরিত্যক্ত খনি থেকে বাদুড়ের শরীরের নমুনা এই ল্যাবে আনা হয়েছিল। সেসময় বাদুড়ের মলমূত্র, মৃতদেহ পরিষ্কার করতে গিয়ে ৬ জন শ্রমিক হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়েন। যাদের মধ্যে ৩ জন শ্রমিকের মৃত্যু হয়। পরে বাদুড়ের নমুনা ল্যাবে আনা হয়। সেখানে গবেষণা করে ভাইরাল স্ট্রেনের খোঁজ পাওয়া যায়। তবে চীন বরাবর এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবে, এ প্রসঙ্গে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন চীনেরই ভাইরাস বিশেষজ্ঞ শি ঝেঙলি।

চীনের সার্স প্রজাতির ভাইরাস বিশেষজ্ঞ শি ঝেঙলি অভিযোগ করেছেন, গত ২০১৫ সাল থেকে উহান ল্যাবে করোনার মতো সংক্রামক ভাইরাস নিয়ে গবেষণার কাজ চলছিল। তবে, সংক্রমণ ধরা পড়ার আগেই ভাইরাস সংক্রান্ত সমস্ত রিপোর্ট লুকিয়ে দেয়া হয়েছিল। সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আগেই ল্যাবরেটরির ডেটাবেস থেকে সমস্ত তথ্য নষ্ট করে দেয়া হয়। তিনি অভিযোগ করেছেন করোনাভাইরাস আগে প্রকৃতিতে ছিল, কিন্তু সার্স কভ ২ এর মত ভাইরাল স্টেন এর সঙ্গে করোনাভাইরাসের বাকি প্রজাতিগুলোর তেমন কোনো মিল নেই। সার্স কভ ২ যেভাবে বারবার অভিযোজন করছে, তা থেকে তাঁর সন্দেহ এই ভাইরাস কৃত্রিম উপায়ে তৈরি করা হয়েছে। এ বিষয়ে অনুসন্ধান করতে এক বিশেষজ্ঞ দল পর্যন্ত তৈরি করেছেন ভাইরাস বিশেষজ্ঞ শি ঝেঙলি।

এই বিশেষজ্ঞ দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, এই ভাইরাস কৃত্রিমভাবে তৈরি করা হয়েছে। যা উহান থেকে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে। ইতিপূর্বে ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে শি ঝেঙলি জানিয়েছিলেন, উহান ল্যাব থেকে মুছে ফেলা হয়েছে সমস্ত ডেটা সাইবার নিরাপত্তার অজুহাতে। সমস্ত ডেটাকে অনলাইন থেকে মুছে ফেলা হয়েছে। সবকিছু করে দেয়া হয়েছে অফলাইন।
আবার অভিযোগ উঠেছে, নিউ ইয়র্কের ইকো হেলথ অ্যালায়েন্সে উহান ল্যাবের এই গবেষণার কাজে বিপুল অর্থ এনে দেবার বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছিল।

একটা সাধারণ ভাইরাসকে কিভাবে ভয়াবহ করে তোলা যায়? তা নিয়ে এখানে কাজ চলছিল। কিন্তু সমস্ত ডেটা মুছে ফেলা হয়েছে। তবে, উহান ল্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, মারণ করোনাভাইরাস যে এই ল্যাব থেকেই পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়েছে, এমন কোন প্রমান কেউ সামনে আনতে পারেননি। তাই এই দাবি ভিত্তিহীন। বিশেষজ্ঞ শি ঝেঙলির অভিযোগকেও অস্বীকার করা হয়েছে। তবে, একাধিক, বিজ্ঞানী, বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, উহান থেকেই তৈরি হয়েছে করোনা ভাইরাস।

error: Alert: Content is protected !!