পাণ্ডুরাজার ঢিবি থেকে কলকাতা, সরকারি বাস চালু করলো পশ্চিম বঙ্গ সরকার

রাধামাধব মণ্ডল :

পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের রামনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের পাণ্ডুরাজার ঢিবি থেকে কলকাতার ধর্মতলা পর্যন্ত এসবিএসটিসি র নতুন বাস পরিসেবা চালু করলো পশ্চিম বঙ্গ সরকার। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায়, এসবিএসটিসি র দক্ষিণ বঙ্গের চেয়ারম্যান হয়েই, এলাকার ছেলে সুভাষ মণ্ডল এই উদ্যোগ নেওয়াই খুশির হাওয়া এলাকায়। যদিও আগেই এই আনন্দের খবর এলাকায় ছড়িয়ে দেন রামনগরের প্রধান।

তখন থেকেই প্রবল উৎসাহ আর উদ্দীপনায় ভিজে যায় আউশগ্রামের এই এলাকাটি। শনিবার বেলা ১ টাই এই বাসযাত্রার উদ্বোধন করেন আউশগ্রামের বিধায়ক অভেদানন্দ থান্দার ও রামনগরের প্রধান সুকুমার আঁকুড়ে। এছাড়াও এদিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রামনগরের বিশিষ্ট সমাজসেবী আসগর সেখ, জেলা পরিষদের সদস্য রামকৃষ্ণ ঘোষ, রামনগরের উপপ্রধান সেখ জিয়াউল হক, সমাজকর্মী সেখ আব্দুল লালন, দেবদাস সরকার ও ছোড়া থানার আই সি রণজিৎ মুখোপাধ্যায়ও আরও অনেকে। এলাকার বিশিষ্ট সমাজসেবীসহ রামনগরের সমস্ত পঞ্চায়েতের সদস্য ও সদস্যারা এদিনের বাসযাত্রায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

শুধুতাই নয় এদিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে আউশগ্রামের বিধায়ক অভেদানন্দ থান্দার বলেন, “আমি আর রামনগরের প্রধান আমাদের সরকারের এসবিএসটিসির চেয়ারম্যান সুভাষ মণ্ডলের এই উদ্যোগে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় পাণ্ডুরাজার ঢিবি থেকে কলকাতার ধর্মতলা পর্যন্ত বাসযাত্রার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলাম। উপস্থিত ছিলেন এলাকার জেলা পরিষদের সদস্য রামকৃষ্ণ ঘোষ ও বহু বিশিষ্ট মানুষ। প্রতিদিন এই এলাকার বহু মানুষ কলকাতা যাতায়াত করেন। সে কথা মাথায় রেখে সুভাষদার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই।”

যদিও এবিষয়ে জিজ্ঞেস করা হলে রামনগরের প্রধান সুকুমার আঁকুড়ে বলেন, “আমাদের আত্মজন সুভাষ মণ্ডলের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। আমার এলাকার বহু মানুষ নিয়মিত কলকাতা যাতায়াত করেন। তাদের জন্য সুভাষবাবুর এই অবদান মনে রাখবে এলাকার মানুষ।” এদিনের এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এলাকার বহু মানুষ উপস্থিত হন। সেই সঙ্গে দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণের বহু আধিকারিকও উপস্থিত ছিলেন।

error: Alert: Content is protected !!